৯ টি ছোট ব্যবসার আইডিয়া (Small business ideas in bengali)

2/5 - (4 votes)

আপনি যদি নিজের একটি ব্যবসা শুরু করার কথা ভাবছেন কিন্তু  একটি ছোট ব্যবসার আইডিয়া পাচ্ছেন না , তাহলে আজকের এই পোস্ট টি আপনাকে অনেক সাহায্য করবে ।

বর্তমান সময়ে একটি ব্যবসা শুরু করার আগে ঠিক মতো বিবেচনা ও পরিকল্পনা নেওয়াটা অত্যন্ত জরুরি , কারণ Covid এর পর থেকে অনেক ব্যবসা রয়েছে যেগুলো হোঁচট খেয়ে পড়েছে , আবার কিছু ব্যবসা চার গুন বেশি উন্নতি করেছে । 

এরম অবস্থায় বোঝাটা খুব কঠিন যে কোন ছোট ব্যবসার আইডিয়া টি  ভবিষতে ঠিকঠাক চলবে আর কোন ছোট ব্যবসার আইডিয়া টি চলবেনা । তাই আপনারা যারা নিজের একটি ছোটো ব্যবসার শুরু করার কথা ভাবছেন , কিন্তু ঠিকঠাক কোনো ছোট ব্যবসার আইডিয়া খুঁজে পাচ্ছেন না , তাদের জন্য আজকের এই পোস্ট টি অনেক টা সাহায্য করবে । কারণ আজকের এই পোস্টে আমরা এবং কিছু ছোট ব্যবসার আইডিয়া ( Small business ideas in bengali ) নিয়ে এসেছি যে ছোটো ব্যবসা গুলো আপনি খুব সহজে কম পুঁজিতে শুরু করতে পারেন ।

ছোট ব্যবসার আইডিয়া

আমাদের মধ্যে অনেকেই আছে যারা নিজের ব্যবসা শুরু করতে চায় , কিন্তু অল্প পুঁজিতে শুরু করার মতো ব্যবসা খুব কম আছে , তাই চলুন দেখে নি ১০ টি ছোট ব্যবসার আইডিয়া ।

 

১. টি শার্ট প্রিন্টিং ব্যবসা

একটা সময় ছিল যখন আমরা বাজারে গিয়ে যে ডিসাইন এর শার্ট বা কাপড় দেখতে পেতাম , তার মধ্যে একটা কিনে নিতাম , কিন্তু বর্তমানে মানুষের অভিরুচি পরিবর্তন হয়েছে , এখন সবাই নিজের ইচ্ছে মতো ডিসাইন করানো শার্ট পছন্দ করছে , কেউ কেউ নিজের ছবি ও নাম দিয়ে টি শার্ট ডিসাইন করিয়ে থাকে ।

সাধারণত টি শার্ট প্রিন্টিং ব্যবসা শুরু করার জন্য একটি মেশিন এর প্রয়োজন হবে , যেটা আপনি অনলাইন ও অফলাইন মার্কেটে ১২-১৫ হাজার টাকার মধ্যে পেয়ে যাবেন ।

এই ব্যবসা শুরু করার আগে আপনাকে একটু বিজ্ঞাপন এর জন্য খরচ করতে হবে , কারণ প্রথমে কেউ জানবে না যে আপনি এই টি শার্ট প্রিন্টিং এর কাজ করেন । এছাড়া আপনি চাইলে অনলাইনে টি শার্ট এর অর্ডার নিয়ে কাজ শুরু করতে পারেন ।

২. ব্রেকফাস্ট বা টিফিন সেন্টার

অনেক সময় আমরা বিভিন্ন কারণে সকালের টিফিন বা সকালের খাবার বা ব্রেকফাস্ট বাইরে করে থাকি , আর তখন আমরা কোনো না কোনো টিফিন সেন্টারে যাই , আর এরকম অনেকেই আছে যারা তাদের কাজের সূত্রে বা বাড়িতে খাবার না বানিয়ে প্রতিদিন বাইরে টিফিন বা ব্রেকফাস্ট করে থাকে । তাই আপনি যদি মোটামুটি খাবার বানাতে পারেন তাহলে আপনি এই ব্যবসা শুরু করতে পারেন , আপনি যদি খাবার বানাতে না পারেন তাহলে আপনি খাবার বানানো শিখে নিয়ে এই ব্যবসা শুরু করতে পারেন ।

আপনার এলাকায় যদি টিফিন সেন্টার না থাকে , তাহলে আপনি আপনার এলাকায় এই ব্যবসা শুরু করতে পারেন , কিংবা কোনো জনবহুল রাস্তার পাশে , বা কোনো বাজারে আপনি এই ব্যবসা শুরু করতে পারেন ।

এই ব্যবসা আপনি খুব কম পুঁজি দিয়ে শুরু করতে পারবেন , মাত্র ১০ হাজার টাকার বিনিয়োগে আপনি এই ব্যবসা শুরু করতে পারবেন ।

৩. কম্পিউটার কোচিন বা ট্রেনিং সেন্টার এর ছোট ব্যবসার আইডিয়া

যদি আপনার মধ্যে কম্পিউটারের দক্ষতা থাকে , এবং যদি আপনি অন্যদের কম্পিউটার শেখাতে পারেন , তাহলে আপনার কাছে এটা একটা ছোটো ব্যবসার আইডিয়া হতে পারে । 

বর্তমানে সমস্ত জায়গায় যেভাবে কম্পিউটারের ব্যবহার বেড়েছে , কিছু বছর পর কম্পিউটার জানাটা খুবই জরুরি হয়ে পড়বে , আর এখন সবাই কম্পিউটারের প্রতি আগ্রহ দেখাচ্ছে ।

প্রথমে আপনি আপনার বাড়ি থেকে ১-২ টি কম্পিউটার কিনে শুরু করতে পারেন । আর এর জন্য আপনাকে নতুন বা উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন কম্পিউটার কেনার প্রয়োজন নেই , আপনি বাজারে কম্পিউটারের দোকান গুলিতে একটু খোঁজ খবর রাখলে খুব সহজে ও খুব অল্প দামে আপনি পুরোনো কম্পিউটার পেয়ে যাবেন , আর এই ব্যবসা শুরু করতে আপনার খুব বেশি হলে ১৫-১৮ হাজার টাকা বিনিয়োগ প্রয়োজন হবে ।

৪. ফলের জুসের দোকান

বর্তমান সময়ে সকলে নিজেদের শরীর স্বাস্থ্যের প্রতি বিশেষ নজর দিচ্ছে , এছাড়া আমরা সবাই জানি যে ফল আমাদের শরীরের জন্য কতটা উপকারী , কিন্তু যারা সারাদিন বাড়ির বাইরে থাকেন তাদের পক্ষে ফল খাওয়া সম্ভব হয় না । আর তখন তাদের কাছে একটাই বিকল্প থাকে , আর সেটা হলো ফলের জুস , আপনি আপনার এলাকায় বা আপনার নিকটবর্তী কোনো বাজার এলাকায় নিশ্চয় ফলের জুসের দোকান দেখেছেন , যেখানে সবাই ভিড় করে । আর এই ব্যবসা সারাবছর চলে , বিশেষ করে গরমকালে এই ব্যবসা বেশি চলে ।

ফলের জুস এর ব্যবসা একটি সেরা ছোট ব্যবসার আইডিয়া হতে পারে , কারণ এই ব্যবসায় পুঁজি বা মূলধন একদম নেই বললেই চলে , আপনি যদি আপনার অতিরিক্ত খরচের টাকা জমিয়ে রাখেন তাহলে মাত্র ২-৩ মাসের জমানো টাকা দিয়ে আপনি ফলের জুসের ব্যবসা শুরু করতে পারেন ।

৫. Packers ও Movers এর ব্যবসা

অনেকেই আছে যারা বিভিন্ন কাজে নিজেদের বাড়ি পরিবর্তন করে অন্য বাড়িতে যায় , এছাড়া অনেকে আছে যারা ভাড়া বাড়িতে , বা ফ্ল্যাটে থাকে , সেক্ষেত্রে তাদেরও বাড়ি পরিবর্তন করতে হয় । এছাড়া অনেক সময় বিভিন্ন অফিস পরিবর্তন করতে হয় , আর এটি একটি কষ্টকর কাজ , কারণ এক বাড়ি বা অফিস থেকে অন্য বাড়ি বা অফিসে জিনিসপত্র নিয়ে যাওয়া অনেক ঝামেলা । আর এইখানেই এই Packers ও Movers ব্যবসার উৎপত্তি , সাধারণত Packers ও Movers এর কাজ হলো আপনার বাড়ি বা অফিসের সমস্ত জিনিসপত্র যত্ন সহকারে প্যাকেজিং করে অন্য বাড়ি তে পৌঁছে দেওয়া , এতে বাড়ি বা অফিসের কাউকে কোনো কিছু করতে হয় না । 

গত কয়েক বছর ধরে এই ব্যবসা অনেক বেশি উন্নতি করেছে , কিন্তু বর্তমানে অনেক মানুষ আছে যারা এই ব্যবসার সম্বন্ধে জানেনা , তাই আপনি যদি এই ব্যবসা শুরু করতে পারেন , তাহলে হয়তো আপনি আপনার এলাকায় প্রথম এই ব্যবসাটি শুরু করবেন ,আর এই ব্যবসায় বিনিয়োগ অনেক কম লাগে । 

৬. কুরিয়ার সার্ভিসের ব্যবসা (Courier Service Business )

বর্তমানে ইন্টারনেটের যুগে কুরিয়ার ব্যবসা একটি নতুন দিশা খুঁজে পেয়েছে , আর তার প্রধান কারণ হলো ই কমার্স ব্যবসা । সাধারণত কুরিয়ার এর কাজ হলো এক জায়গার জিনিস অন্য জায়গায় পৌঁছানো , আপনি চাইলে একটি ছোট কুরিয়ার সার্ভিসের ব্যবসা শুরু করতে পারেন । তবে এর জন্য আপনাকে মার্কেটিং করতে হবে কারণ বাজারে অনেক বড়ো বড়ো Courier Partner বা কোম্পানি রয়েছে , তাই এর জন্য প্রথমে আপনাকে নিজের এলাকায় ছোট ছোট কাজ করতে হবে , অর্থাৎ নিজের এলাকার ২৫-৩০ কিলোমিটারের মধ্যে কুরিয়ার সার্ভিস দিতে হবে ।

এই ব্যবসা শুরু করার জন্য আপনি ১-২ জন কে নিয়ে শুরু করতে পারেন , কারণ আপনার একার পক্ষে অর্ডার নেওয়া এবং ডেলিভারি করা সম্ভব হবে না , এরপর আস্তে আস্তে যখন আপনার ব্যবসা বড়ো হতে শুরু করবে তখন আপনি আপনার কর্মচারী বাড়াতে পারেন এবং আপনার কুরিয়ার সার্ভিসের Area বাড়াতে পারেন ।

৭. জলের বোতলের ছোট ব্যবসার আইডিয়া

জলের প্রয়োজন সকলের রয়েছে , তাই তো জলের ওপর নাম জীবন , বেশ কয়েক বছর ধরে জলের বোতলের চাহিদা অনেক বৃদ্ধি পেয়েছে । এক সময় কোনো অনুষ্ঠানে জল দেওয়া হতো গ্লাসে করে , কিন্তু কিছু বছর ধরে ছোটো ছোটো জলের বোতল দেওয়া হচ্ছে । আর তাছাড়া এমনি বাইরে দোকানে তো জলের চাহিদা রয়েছে , তাই যদি আপনি জলের বোতলের ব্যবসা শুরু করতে পারেন তাহলে এটা আপনার জন্য সেরা ছোট ব্যবসার আইডিয়া হতে পারে ।

এই ব্যবসা শুরু করার আগে আপনাকে একটু মার্কেটিং করে নিতে হবে , কারণ মার্কেটিং করা থাকলে আপনার কাস্টমার পেতে সুবিধা হবে, আর এই ব্যবসা খুব কম বিনিয়োগে শুরু করতে পারবেন ।

৮. Paint বা রং এর ব্যবসা

যে কোনো অনুষ্ঠানে আমরা ঘর রং বা Paint করে থাকি , আর এটি এমন একটি জিনিস যার কোনো নির্দিষ্ট সময় নেই , রঙের চাহিদা সব সময় সমান থাকে । 

এবার রঙের চাহিদা যখন রয়েছে তখন এর ব্যবসা শুরু করা যেতেই পারে , যদি আপনি রঙের ব্যবসার প্রতি আগ্রহ রাখেন , তাহলে এটি আপনার জন্য সেরা ছোট ব্যবসার আইডিয়া হতে পারে ।

প্রথমে আপনি রঙের পাইকারি ব্যবসায়ীদের কাছে থেকে কিনে এনে বিক্রি করতে পারেন , পরে যখন আপনার ব্যবসা একবার চলতে শুরু করবে , তখন আপনি বিভিন্ন বড়ো বড়ো রঙের কোম্পনীর সাথে যোগাযোগ করে ব্যবসা করতে পারেন ।

৯. গ্রাফিক্স ডিসাইন এর ব্যবসা

আপনি কি একজন সৃজনশীল বা ক্রিয়েটিভ মানুষ ? তাহলে এই আধুনিক ছোট ব্যবসার আইডিয়া টি শুধু আপনার জন্য , বর্তমানে ইন্টারনেটের ব্যবহার বৃদ্ধির সাথে সাথে এই ব্যবসা অনেক উন্নতি করেছে । এছাড়া বেশ কিছু জায়গায় গ্রাফিক্স এর ব্যবহার করা হয় , আপনি যদি গ্রাফিক্স ডিসাইন এর কাজ জানেন তাহলে আপনি আপনার ঘরে বসে ফ্রীলান্সিং এর মাধ্যমে এই ব্যবসা শুরু করতে পারেন ।

আপনি যদি গ্রাফিক্স ডিসাইন এর কাজ জানেন তাহলে আশা করি আপনার কাছে একটি কম্পিউটার বা ল্যাপটপ আছে , আর আপনি এই কম্পিউটার বা ল্যাপটপ থেকে এই ব্যবসা শুরু করতে পারেন । এই ব্যবসায় বিনিয়োগ বলতে শুধু আপনার কম্পিউটার বা ল্যাপটপ টি , আপনি নিজেই এই ব্যবসা শুরু করতে পারেন বা টীম নিয়েও শুরু করতে পারেন ।

 

গ্রাফিক্স ডিজাইন কি ? কিভাবে একজন গ্রাফিক ডিজাইনার হওয়া যায় ?

 

আমাদের মধ্যে অনেকেই আছে যারা যে কোনো কাজ কে ছোট করে দেখে , আসলে বাস্তবে কিন্তু কোনো কাজ ছোট নয় , আর যে কোনো কাজ ছোট থেকে শুরু হয়ে বড়ো হয় । আজকের এই পোস্টে কয়েকটি সেরা ছোট ব্যবসার আইডিয়া  ( Small business ideas in bengali ) নিয়ে আমরা আলোচনা করলাম , এর মধ্যে যে কোনো একটি ব্যবসার আইডিয়া এর উপর আপনি কাজ শুরু করতে পারেন ।

আজকের এই পোস্ট টি আপনাদের যদি ভালো লেগে থাকে , তাহলে অতি অবশ্যই আমাদের কমেন্ট করে জানাবেন , এবং এর মধ্যে কোনো ব্যবসার আইডিয়া এর সম্বন্ধে বিস্তারিত জানতে হলে আমাদের কমেন্ট করে জানান , আমরা সেই ব্যবসার আইডিয়া এর উপর বিস্তারিত তথ্য প্রদান করবো , আর এরম তথ্য পেতে হলে আমাদের ব্লগের সাথে যুক্ত থাকুন ।

ধন্যবাদ 

বঙ্গজ্ঞান টীম  

শেয়ার করুন:

নমস্কার , বঙ্গজ্ঞান ওয়েবসাইটে আপনাদের স্বাগত , আপনাদের বিভিন্ন বিষয়ে যেমন ব্যবসা , ক্যারিয়ার , কম্পিউটার জ্ঞান , ইন্টারনেট ইত্যাদির উপর আমরা তথ্য নিয়ে আসি প্রতি সপ্তাহে সোমবার এবং শুক্রবার । আমাদের উদ্দেশ্য আপনাদের সবার কাছে বাংলা ভাষায় সঠিক তথ্য পৌঁছে দেওয়া।

Leave a Comment